1. shahinit.mail@gmail.com : My Bangla Tv : My Bangla Tv
  2. mybanglatv2021@gmail.com : মাই বাংলা টিভি : মাই বাংলা টিভি
৪ঠা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | সকাল ৮:৩১

শেষ হলো কলকাতার ১১তম বাংলাদেশ বইমেলা

ডেক্স রির্পোট।
  • প্রকাশের সময় বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১৪, ২০২৩,
  • 122 পাঠক

এবারের মতো শেষ হলো কলকাতার ১১তম বাংলাদেশ বইমেলা। ১০ দিন ধরে চলা এই মেলা শুরু হয়েছিল গত ৪ ডিসেম্বর কলেজ স্কয়ার প্রাঙ্গনে। বুধবার (১৩ ডিসেম্বর) সমবেত কণ্ঠে সঙ্গীত পরিবেশন ও প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে মেলার সমাপনী হয়।
শেষ দিনের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কলকাতাস্থ বাংলাদেশের উপ-হাইকমিশনার আন্দালিব ইলিয়াস, সাদেকুল করিম, আতাউর রহমান, রাবেয়া রহমান, মেজবাহ উদ্দিন আহমেদসহ বিশিষ্টজনেরা।
মেলার শেষ দিনেও কলেজ স্কয়ারে ছিল বইপ্রেমী মানুষদের উপচে পড়া ভিড়। বাংলাদেশের ৬৫ শীর্ষস্থানীয় প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান এই মেলায় অংসগ্রহন করে- যার মধ্যে ছিল অন্বেষা প্রকাশন, আহমেদ পাবলিশিং হাউস, মাওলা ব্রাদার্স, অনিন্দ্য প্রকাশ, নালন্দা, বাতিঘর, উজান, কথা প্রকাশ, মাওলা ব্রাদার্স, দি ইউনিভার্সিটি প্রেস লিমিটেড, কাকলী প্রকাশনী প্রভৃতি।
এছাড়াও, বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মরণে মেলা প্রাঙ্গনে স্থাপন করা হয় ‘হৃদয়ে বঙ্গবন্ধু’ স্টল।
প্রান্ত প্রকাশনীর বিক্রেতা মোহাম্মদ আমির রহমান বলেন, অন্যবারের চেয়ে এবারের মেলায় বই বিক্রি তুলনামূলক ভালো হয়েছে। প্রচারের কিছুটা সমস্যা ছিল। প্রত্যেক বছর একই জায়গায় হলে সবাই জানবে যে বাংলাদেশ বইমেলা কলেজ স্কয়ারে হবে। আশা করি প্রতি বছর এখানেই মেলা অনুস্টিত হবে।
বই কিনতে আসা ঢাকার বাসিন্দা মোহাম্মদ আমজাদ হোসেন কাজল বলেন, কলকাতায় চিকিৎসা করাতে এসছিলাম। এসে জানতে পারলাম, কলেজ স্কয়ারে বাংলাদেশ বইমেলার আজ শেষ দিন। তাই ঘুরে গেলাম ।
অনেক বইপ্রেমীর অভিযোগ, কলেজ স্কয়ারে অন্য সময় সব বই পাওয়া গেলেও বাংলাদেশের বই খুব একটা পাওয়া যায় না। তাদের জন্য পছন্দের বাংলাদেশি লেখকদের বই হাতের নাগালে নিয়ে আসে বাংলাদেশ বইমেলা।
কলকাতায় বাংলাদেশ বইমেলার যাত্রা শুরু হয়েছিল ২০১১ সালে গগনেন্দ্র প্রদর্শশালায়। পরপর তিন বছর সেখানে অনুষ্ঠিত হওয়ার পর ২০১৪ সালে এই মেলা রবীন্দ্র সদনের উন্মুক্ত প্রাঙ্গনে স্থানান্তরিত হয়। আর সেই সময় থেকেই মেলায় যোগ হয় নতুন মাত্রা। শুধু বইয়ের মধ্যে সীমাবদ্ধ না থেকে সেমিনার ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এটি সাংস্কৃতিক মিলনমেলায় পরিণত হয়। তিন বছর সেখানে বইমেলা অনুষ্ঠিত হওয়ার পর ২০১৭ সালে তা স্থানান্তরিত করা হয় মোহর কুঞ্জে।
এরপর ২০১৯ সাল পর্যন্ত পরপর তিনবার সেখানে এই মেলা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর করোনাভাইরাস মহামারির কারণে ২০২০ ও ২০২১ সালে এই মেলা আয়োজন করা সম্ভব হয়নি। অবশেষে করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার পর ২০২২ সালে বই মেলার আসর বসে কলকাতার কলেজ স্কয়ার প্রাঙ্গনে।
কয়েক বছর ধরে ধারাবাহিকভাবে এই মেলা আয়োজনের ফলে কলকাতায় বাংলাদেশি বইয়ের চাহিদা বৃদ্ধি পাচ্ছে। পাশাপাশি, বাংলাদেশি লেখকদের পরিচিতি বাড়ছে এবং বাংলাদেশের বইয়ের বাজারও প্রসারিত হচ্ছে।

লাইক ও শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন-
এই পাতার আরও খবর

এই অন লাইন নিউজ পোর্টাল মাই বাংলা টিভির ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি | Copyright© My Bangla Tv | Developed By

Theme Customized BY WooHostBD