1. shahinit.mail@gmail.com : My Bangla Tv : My Bangla Tv
  2. mybanglatv2021@gmail.com : মাই বাংলা টিভি : মাই বাংলা টিভি
৪ঠা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | সকাল ৭:২৫

নরসিংদীতে শাবিপ্রবি শিক্ষার্থী বুলবুলের বাড়িতে পরিবারের আহাজারী

নরসিংদী প্রতিনিধি।
  • প্রকাশের সময় মঙ্গলবার, জুলাই ২৬, ২০২২,
  • 311 পাঠক

নরসিংদীতে শাবিপ্রবি শিক্ষার্থী বুলবুলের বাড়িতে পরিবারের আহাজারীতে আকাশ বাতাশ বাড়ি হয়ে উঠছে। শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (শাবিপ্রবি) ক্যাম্পাসে সোমবার দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে নিহত হন  মেধাবী শিক্ষার্থী বুলবুল আহমেদ। একজন বিসিএস ক্যাডার হয়ে দেশসেবায় আত্মনিয়োগ করার স্বপ্ন ছিল বুলবুল আহমেদ ও তার পরিবারের। একমাত্র বড় ভাইয়ের উপার্জন ও বুলবুলের পাঠানো টিউশনির টাকায় চলতো তাদের পিতৃহীন নিম্নবিত্ত পরিবারটি। হঠাৎ এমনভাবে দুর্বৃত্তের হাতে বুলবুলের খুন হওয়াকে পরিকল্পিত হত্যা মনে করছেন পরিবারের সদস্যরা।

শাবিপ্রবির লোক-প্রশাাসন বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী বুলবুল আহমেদ নরসিংদী সদরের চিনিশপুর এলাকার বাসিন্দা মৃত ওয়াহাব মিয়ার ছেলে। মঙ্গলবার সকালে বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, ভাইকে হারানোর শোকে আহাজারি করছেন বড় বোন সোহাগী আক্তার। স্বপ্ন ছিলো, ভাই বুলবুল বিসিএস ক্যাডার হয়ে পরিবারের স্বপ্ন পূরণ করবে।

হাল ধরবে ৭ মাস আগে মারা যাওয়া পিতা ওয়াহাব মিয়ার নিম্নবিত্ত সংসারের। কিন্তু দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে সেই স্বপ্ন মুছে গেলো নিমিষেই।ছেলেকে নিয়ে বড় স্বপ্ন থাকলেও এখন ছেলের লাশের অপেক্ষায় থাকা মা ইয়াসমিন বেগম বিলাপ করছেন। সোমবারই মায়ের কাছে নতুন জুতা কেনার জন্য টাকা চেয়েছিলেন ছেলে বুলবুল। নিম্নবিত্ত মা ছেলের সেই জুতা কেনার শখও পূরণ করতে পারেননি বলে বারবার আফসোস করে একই প্রলাপ করছেন।

ছিনতাইকারীরা এই হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এমন দাবী করলেও এর পেছনে অন্য কোন কারণ আছে এবং এটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড বলে দাবী পরিবারের। সঠিক তদন্তের মাধ্যমে প্রকৃত খুনীদের বিচারের আওতায় আনার দাবি তাদের। এদিকে বুলবুল হত্যার প্রতিবাদে চিনিশপুরে মানববন্ধন করেছে স্থানীয়রা।

মেধাবী শিক্ষার্থী বুলবুল ২০১৬ সালে নরসিংদী সদরের কালিকুমার উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি ও ২০১৮ সালে আবদুল কাদির মোল্লা সিটি কলেজ থেকে জিপিএ ৫ পেয়ে এইচএসসি পাস করেন। একই বছর ডিসেম্বরে ভর্তি হন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগে। চিনিশপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মেহেদি হাসান তুহিন বলেন, গত ৭ মাস আগে মারা যান বুলবুলের পিতা ওয়াহাব মিয়া। তারপর একমাত্র বড় ভাইয়ের বেসরকারি চাকুরি ও বুলবুলের টিউশনির টাকায় চলত তাদের ৫ সদস্যের নিম্নবিত্ত সংসার। মেধাবী ছেলেকে হারিয়ে পরিবারটি এখন অসহায় হয়ে পড়েছেন। এলাকা বাসী ও মেধাবী শিক্ষার্থী বুলবুল আহমেদের হত্যার বিচার দাবী করেন।

লাইক ও শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন-
এই পাতার আরও খবর

এই অন লাইন নিউজ পোর্টাল মাই বাংলা টিভির ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি | Copyright© My Bangla Tv | Developed By

Theme Customized BY WooHostBD